সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :
টেকনাফে এই প্রথম স্বল্প মূল্যে ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্ট, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ভিডিও এডিটিং ও অডিও এডিটিং করার জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন- ফ্রিল্যান্সার আজাদ, পরিচালক- একে ফিল্ম মাল্টিমিডিয়া, মোবা: 01878-305010.
সংবাদ শিরোনাম :
টেকনাফের মরহুম এজাহার মিয়া কোম্পানির কবর জিয়ারত করেছেন টেকনাফের কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ টেকনাফ হ্নীলা বার্মিজ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামসুদ্দীন এর প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা টেকনাফে ইয়াবা ও স্বর্ণসহ দম্পতি আটক টেকনাফ সদর ইউনিয়ন লম্বরী ঘাট থেকে সাগরে নৌকা ডুবে মোঃ বাবুল নামে এক জেলে নিখোঁজ টেকনাফে ইউনাইটেড স্টুডেন্টস্ ফোরাম ৪র্থ তম ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে টেকনাফে যুগান্তরের প্রতিনিধি পরিচয়ে প্রাইভেট কারসহ আটক টেকনাফ সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম-মুক্তিযুদ্ধ ৭১ এর সভাপতি সাইফুদ্দীন খালেদের উদ্যেগে ৫’শ পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ টেকনাফে শাহাজাহান মিয়া চেয়ারম্যানের নিজ প্রশেষ্টায় দীর্ঘ ৬ কিলোমিটার রাস্তার মেরামতের কাজ চলছে টেকনাফে জাহেদ হোসেন বৈদ্যুতিক শর্টে দিয়ে এক কিশোর কে খুন: পরিবারের দাবি টেকনাফে এক প্রবাসীর জমি জোরপুর্বক দখলে নিতে সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত-১
টেকনাফে জাহেদ হোসেন বৈদ্যুতিক শর্টে দিয়ে এক কিশোর কে খুন: পরিবারের দাবি

টেকনাফে জাহেদ হোসেন বৈদ্যুতিক শর্টে দিয়ে এক কিশোর কে খুন: পরিবারের দাবি

আরাফাত সানি, টেকনাফ টিভি:::

টেকনাফে ফল বাগানে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগের শর্টেই লেগে এক কিশোরের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। নিহতের পরিবারের দাবী পূর্ব শত্রুতার জেরধরে এই কিশোর ছেলেকে খুন করা হয়েছে।

১৭ জুলাই (শনিবার) সকাল ১১টারদিকে টেকনাফ মডেল থানার এসআই আবু সাঈদ সর্ঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে টেকনাফ সদর ইউপির দক্ষিণ লেঙ্গুরবিলের মৃত নজু মিয়ার পুত্র জাহেদ হোছনের ফলদ বাগান সংলগ্ন এলাকা থেকে স্থানীয় ছৈয়দ আকবরের কিশোর পুত্র শুক্কুর আহমদ (১৩)এর মৃতদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরীর পর পোস্টমর্টের জন্য নিয়ে যায়।

টেকনাফ মডেল থানার এসআই আবু সাঈদ জানান, মৃতদেহ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য,গতকাল রাত ৭ টারদিকে বাড়ির সামনে চাচাতো ভাইয়ের দোকানে আড্ডা দিয়েছিল, সেখানে কিছুক্ষণ বসার পর দোকান থেকে চলে যায়। এরপর রাত যখন গভীর হতে থাকে তখনোও ছেলে বাড়িতে না ফেরায় মা এবং পরিবারের অন্য সদস্যরা তাকে খুঁজতে থাকে।
না পেয়ে হতাশ হয়ে গভীর রাতে মা-বাবা বাড়ি ফিরে আসে। সকালে নুর বেগম বিলের পানিতে শুক্কুৃরের মৃতদেহ দেখতে পেয়ে চিৎকার করে মাকে জানায়। তখন মা এসে ছেলের লাশ দেখতে পায়। এরপর কান্নাকাটি শুরু হয়

পরিবার জানান আমার ছেলে কে কারেন্ট শর্ট দিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে, আমি এই বিচার চাই আমার ছোট ছেলে কারো ক্ষতি করেনি টাকার গরমে মানুষ কে মানুষ মনে করে না, প্রতিনিয়ত মানুষ কে হয়রানি করে আসছে। আমরা এই বিচার চাই। অতিসত্বর আইনের আওতায় আনা হোক এই দাবি সাধারণ মানুষের।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© টেকনাফ টিভি.কম | সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত ২০১৯ ওয়েব ডেভেলপার : ফ্রিল্যান্সার আজাদ খান